চর্মরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ ত্বকের ফাটা দাগ দূর করতে

ডা. নাজারিয়ান বলেন, ‘ক্লিনিক্যাল গবেষণা থেকে জানা যায়, ১২ সপ্তাহের জন্য প্রতিদিন ভিটামিন-সি গ্রহণে ত্বকের ফাটা দাগের ক্ষেত্রে উপকার পাওয়া যায়।’ ভিটামিন-সি গ্রহণের ক্ষেত্রে খুব বেশি চিন্তার কিছু নেই। লেবু, কমলালেবু, জাম্বুরাসহ বিভিন্ন ধরনের ফলে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-সি পাওয়া যায়।আরও পড়ুনঃ   ঘরোয়া উপায়ে অতি সহজে মুখের কালো দাগ মুছে ফেলুন অ্যালোভেরা জেল ব্যবহার দারুণ ময়েশ্চারাইজিং প্রাকৃতিক উপাদান অ্যালোভেরা জেল ত্বকের কোমলতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে এবং ত্বকের ফাটাদাগ দূর করে। এমনকি চমৎকার এই উপাদান ত্বকের কাটাছেঁড়ার দাগ দূর করতেও কার্যকরী।সূত্র: রিডার্স ডাইজেস্ট  

ত্বক ফেটে যাওয়া ঠেকাতে সবচাইতে কার্যকরী উপায় হলো ত্বক ফাটা রোধ করা। বিশেষ করে গর্ভাবস্থায় মায়েদের পেটের ত্বক অনেক বেশি ফেটে যায়। এক্ষেত্রে পেটের ত্বক ফাটার আগ থেকেই দাগ দূর করার ক্রিম ব্যবহার করতে হবে। কারণ হিসেবে নিউ ইয়র্ক শহরের চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. র‍্যাচেল নাজারিয়ান জানান, ত্বক ফেটে যাওয়ার দাগ সম্পূর্ণভাবে দূর করা বেশ কষ্টসাধ্য একটি ব্যাপার। অনেকদিন লেজার চিকিৎসা নিলে দাগ কিছুটা দূর করা সম্ভব হয়। তবে নিজ ঘরে বসেও ত্বক ফাটা রোধ করা সম্ভব। কিছু ঘরোয়া উপাদান ব্যবহারের মাধ্যমে ত্বকে প্রদাহ কমিয়ে ফেলা যায়।

নারিকেল তেল ব্যবহার করাপ্রাকৃতিক এই তেলে রয়েছে প্রদাহ-বিরোধী উপাদান। যা ত্বকে উজ্জ্বলভাব আনতে ও ফাটাদাগ দূর করতে সাহায্য করে। ডা. নাজারিয়ান বলেন, ‘হাতের তালুতে পরিমাণ মতো নারিকেল তেল নিয়ে আক্রান্ত ত্বকের চারপাশে ভালোভাবে ম্যাসাজ করতে হবে। টানা তিন মাস প্রতিদিন নারিকেল তেল ব্যবহার অব্যাহত রাখতে হবে।’

আমন্ড অয়েল ডা. নাজারিয়ানের মতে আমন্ড অয়েলে বিদ্যমান ভিটামিন-ই ত্বকের জন্য দারুণ উপকারী উপাদান। প্রতিদিন নিয়ম করে আমন্ড ওয়েল ব্যবহারে ত্বকের ফাটাদাগ দেখা দেওয়া বন্ধ হয়। একইসাথে ফাটা দাগ তৈরি হলে সেটা সারাতেও আমন্ড ওয়েল কার্যকরী।ত্বকের ফাটা দাগ রোধে ভিটামিন-সি

জেনে নিন কোন ঘরোয়া উপাদানগুলো ব্যবহারে ত্বকের ফাটাভাব কমিয়ে ফেলা যাবে।ধারাবাহিকভাবে চিকিৎসা গ্রহণ করাত্বকের ফাটাভাব পুরোপুরিভাবে দূরে রাখতে চাইলে যেকোনো পণ্য অথবা ক্রিম ব্যবহারের ক্ষেত্রে ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে হবে। এটাই সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কারণ ধৈর্য ধরে ধারাবাহিকতা ধরে না রাখতে পারলে ত্বকে ফাটা দাগের প্রভাব দেখা দেওয়া শুরু করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *